মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ন্যাশনাল আইসিটি ইনফ্রা-নেটওয়ার্ক ফর বাংলাদেশ গভর্মেন্ট ফেইজ-২ (ইনফো-সরকার)

 

তথ্য প্রবাহের এই আধুনিক যুগে উন্নত রাষ্ট্রগুলো যেমন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহারের মাধ্যমে উপকৃত হচ্ছে তেমনই অনেক উন্নয়নশীল রাষ্ট্র দারিদ্র,মন্থর অর্থনীতি এবং অদক্ষ শাসন ব্যাবস্থা উন্নয়নের কার্যকর হাতিয়ার হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারের দিকে মনোযোগী হচ্ছে। বাংলাদেশে ই-গভর্নেন্স এখন একটি আলোচিত বিষয়। কতিপয় সরকারি কার্যালয় নির্দিষ্ট কিছু ই-গভর্নমেন্ট প্রকল্পের বিষয়ে উদ্ভাবনী পদক্ষেপ নিয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার উন্নত সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সরকারি সেবাসমূহ উন্নয়নের পাশাপাশি স্বচ্ছতা নিশ্চিতকরণ এবং জনগণের প্রতি সরকারের দায়বদ্ধতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সক্রিয়ভাবে ই-গভর্নেন্সকে গ্রহণ করেছে। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন আইনগত ও কৌশলগত কাঠামো প্রস্তুত করেছে। এছাড়াও সরকারি কার্যালয় গুলোকে একই নেটয়ার্কের আওতায় এনে তাদের মধ্যে তথ্যের ব্যাবস্থাপনা,আদান-প্রদান এবং সমন্বয় করার লক্ষ্যে একটি তথ্য ব্যাবস্থাপনা পদ্ধতির উন্নয়ন করছে। সরকারি তথ্যসমূহের নিরাপত্তার জন্য এই পরিকাঠামো পর্যাপ্ত ব্যাবস্থা গ্রহণ করবে।

জাতীয় পর্যায়ে ই-গভর্ননেন্সকে কার্যকরী করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার বৈদেশিক আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সহযোগীতা পাচ্ছে।সরকারের দক্ষতা ও স্বচ্ছতা উন্নয়নের জন্য ক্রমবর্ধমান চাহিদা বিবেচনা করে “ন্যাশনাল আইসিটি ইনফ্রা-নেটওয়ার্ক ফর বাংলাদেশ গভর্নমেন্ট ফেজ-২(ইনফো-সরকার)”প্রকল্পের নামে একটি সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রস্তুত করা হয়েছে।

“ইনফো-সরকার”প্রকল্পটি কোরিয়ান এক্সিম ব্যাংক এর আর্থিক সহায়তায় বিসিসি কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন “বাংলা গভনেট”প্রকল্পের সম্প্রসারিত ধাপ। ইনফো-সরকার প্রকল্পের আওতায় সকল মন্ত্রণালয় বা বিভাগীয় প্রধান কার্যালয়,৬৪ জেলা প্রশাসকের কার্যালয় এবং ৬৪ উপজেলাতে আইসিটি নেটওয়ার্ক স্থাপন করা হবে। এই নেটওয়ার্ক পরিচালিত হবে বিসিসি-তে স্থাপিত “ন্যাশনাল আইসিটি সেন্টার(এনআইসিটিসি)”এর মাধ্যমে।  এনআইসিটিসি-এর অন্তর্ভুক্ত আইসিটি সেন্টারগুলো হচ্ছে-৬৪টি জেলা আইসিটি সেন্টার,৭টি বিভাগীয় আইসিটি সেন্টার এবং ৬৪ উপজেলা কর্মকর্তার অফিসে উপজেলা আইসিটি সেন্টার।

সরকারের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় প্রশাসনের মধ্যে তথ্য আদান-প্রদানের সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে সরকারী কার্যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ,অধিকতর উন্নত জনসেবা প্রদানেরজন্য প্রশাসনের সর্বস্তরে ই-গভর্নেন্স প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে ধাপ-১ (বাংলাগভনেট) প্রকল্পের সম্প্রসারণ হিসেবে ধাপ-২ প্রকল্পের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

ইনফো-সরকার প্রকল্পটি চীন সরকারের প্রাধিকারমূলক সুবিধাপ্রাপ্ত ঋণ দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।

http://infosarker.bcc.net.bd